Breaking News

‘ভারতে বিষাক্ত গ্যাস ছড়াচ্ছে চীন ও পাকিস্তান’

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে দূষিত বাতাস ছেয়ে গেছে। আর এর দায় পাকিস্তান এবং চীনের উপর চাপালেন উত্তরপ্রদেশের বিজেপি নেতা বিনীত আগরওয়াল সারদা। তিনি বলেন, ভারতকে দেখে ঘাবড়ে গিয়ে চিন আর পাকিস্তানই দেশে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে দিয়েছে।

পশ্চিমা বাতাসের কারণে গতকাল থেকে একটু একটু করে দূষণের চাদর সরতে শুরু করেছে দিল্লির উপর থেকে। তবে এখনও বিপদ পুরোপুরি কাটেনি বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে রাজধানীর দূষণ নিয়ে রাজনীতিকরাও পরস্পরকে দোষারোপ করে যাচ্ছেন।

দিল্লি ও এর আশপাশের এলাকাগুলো বায়ুদূষণের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে বিজেপির এই নেতা বলেন, ‘এটা দেখে (বায়ুদূষণ) মনে হচ্ছে যে পাশের কোনো দেশ বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে দিয়েছে। পাকিস্তান ও চীন ভয়ে আতঙ্কিত। তারা আমাদের এখন ভয় পায়।’

সারদা বলেন, নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ ক্ষমতায় আসার পর থেকেই তাঁদের বিরুদ্ধে সব ধরনের কৌশল প্রয়োগ করছে পাকিস্তান। পাকিস্তান এখন হতাশ। তারা কখনোই ভারতের বিরুদ্ধে একটি যুদ্ধেও জেতেনি।

গত ২৭ অক্টোবর দেওয়ালির অনুষ্ঠানের পর রাজধানী নয়াদিল্লি ও এর আশপাশের এলাকাগুলো মারাত্মক বায়ুদূষণের শিকার। এতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ওই এলাকার জনজীবন। গত শুক্রবার থেকে দিল্লিতে জারি রয়েছে জনস্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা। ওই দিন থেকেই বন্ধ এখানকার বিদ্যালয়গুলো। হরিয়ানা, পাঞ্জাবসহ আশপাশের রাজ্যগুলোতে কৃষকদের খড় পোড়ানোর ধোঁয়া দিল্লির বায়ুদূষণের অন্যতম কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালসহ বিভিন্ন পরিবেশ সংস্থা।

তবে খড় পোড়ানোর জন্য দিল্লির বায়ুদূষণ হচ্ছে, কেজরিওয়ালের এমন মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন সারদা। তিনি বলেন, দিল্লির অবস্থার জন্য কৃষক ও কারখানাগুলোকে দায়ী করা উচিত নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.